ঈদের আগে এসএসসির সম্ভাবনা নেই ssc exam kobe hobe 2022

ssc exam kobe hobe 2022 ঈদের আগে এসএসসির সম্ভাবনা নেই ssc exam 2022: Covid 19- কারণে প্রায় দুই বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের কারণে Primary থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত দেশের প্রায় 4 কোটি শিক্ষার্থীর শিক্ষাজীবন ও Pedagogy ওলটপালট হয়ে আছে। গত February শেষ সপ্তাহ থেকে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ার পথে এগোচ্ছিল। এর মধ্যে এখন বন্যার বড় ধাক্কা লেগেছে শিক্ষার ওপরও।  কেবল Sylhet অঞ্চলেরই চার জেলায় প্রায় চার হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে পাঠদান বন্ধ হয়ে গেছে।

ssc exam kobe hobe 2022

ssc exam kobe hobe 2022?এর মধ্যে দেড় হাজারের বেশি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ব্যবহৃত হচ্ছে বন্যাকবলিত মানুষের আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে।

অন্যদিকে বন্যার কারণে ইতিমধ্যে স্থগিত ঘোষণা করা হয়েছে SSC ও সমমানের পরীক্ষা। নতুন তথ্য হলো, আসন্ন ঈদের আগে আর এ Exam শুরুর কোনো সম্ভাবনা নেই বলে Dhaka Board of Education সূত্রে জানা গেছে। আর SSC পরীক্ষা পিছিয়ে যাওয়ায় আগামী 22 আগস্ট থেকে শুরু হতে যাওয়া এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষাও পিছিয়ে যাচ্ছে।

Covid 19 সংক্রমণের কারণে 2020 সালের 17 March দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করেছিল সরকার। করোনা পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হলে দীর্ঘ 18 মাস পর গত বছরের সেপ্টেম্বরে Educational Institutions খুলে দেওয়া হয়। তখন শ্রেণি কার্যক্রম চলছিল স্বল্প পরিসরে। এরপর আবারও নতুন করে করোনার সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় গত 21 জানুয়ারি আবার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছুটি ঘোষণা করে সরকার। এরপর 22 February প্রথমে মাধ্যমিক এবং মার্চের শুরু থেকে প্রাথমিক school গুলো খোলা হয়।

2022 ssc exam এখন করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির মধ্যেই সিলেট

সুনামগঞ্জসহ দেশের বেশ কয়েকটি জেলায় ভয়াবহ বন্যা চলছে। এ জন্য 19 June SSC পরীক্ষা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও তা স্থগিত ঘোষণা করে সরকার। Dhaka শিক্ষা বোর্ডের একজন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা আজ বুধবার প্রথম আলোকে বলেন, প্রথমে ধারণা করা হয়েছিল হয়তো বন্যা পরিস্থিতির উন্নতি হয়ে যাবে এবং EID আগেই স্থগিত পরীক্ষা শুরু করা যাবে। কিন্তু এখন আরও বিভিন্ন জেলা বন্যাকবলিত হয়েছে। সব মিলিয়ে বর্তমানে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে,

ssc exam kobe hobe 2022? ssc exam date:

ঈদের আগে এ পরীক্ষার সুযোগ নেই। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ওই কর্মকর্তা বলেন, ধরে নিতে পারেন 90% হলো ঈদের আগে শুরুর কোনো সম্ভাবনা নেই। এরপরও যদি উচ্চ পর্যায় থেকে কোনো নির্দেশনা আসে, তাহলে ভিন্ন কথা। কিন্তু বাস্তবতা হলো এখনো অনেক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্যায় প্লাবিত। সিলেট অঞ্চলে বিপুলসংখ্যক শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবেও ব্যবহৃত হচ্ছে। সুতরাং এ অবস্থায় ঈদের পরীক্ষা শুরুর পরিস্থিতি নেই।

শিক্ষাপঞ্জি অনুযায়ী, আগামী 3 July থেকে 19 July পর্যন্ত 15 দিন পবিত্র Eid-ul-Azha এবং গ্রীষ্মকালীন ছুটি আছে। এর মধ্যে ঈদুল আজহার জন্য ছুটি নির্ধারিত আছে 9 থেকে 11 জুলাই।

ssc exam hall শ্রেণিকক্ষে মানুষের বসবাস

বন্যায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতির মুখে আছে Sylhet অঞ্চলের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো। এর মধ্যে সংখ্যার বিবেচনায় প্রাথমিক বিদ্যালয়গুলো বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। Sylhet বিভাগীয় প্রাথমিক শিক্ষা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, সিলেট অঞ্চলের চার জেলা সুনামগঞ্জ, সিলেট, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজারে মোট প্রাথমিক বিদ্যালয় আছে ৫ হাজার 54টি। এর মধ্যে আজ বুধবার পর্যন্ত 3 হাজার 165টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পাঠদান স্থগিত আছে। অর্থাৎ প্রায় 63% বিদ্যালয়েই পাঠদান বন্ধ আছে। এর মধ্যে বন্যা আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে 1 হাজার 148টি বিদ্যালয়। তবে বন্যায় প্লাবিত বিদ্যালয়ের সংখ্যা 2 হাজার 828।

অন্যদিকে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তরের (Mausi) সিলেট অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক মো. আবদুল মান্নান খান প্রথম আলোকে জানিয়েছেন, সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার নিয়ে চলা বন্যার কারণে 828টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে গত মঙ্গলবার পর্যন্ত পাঠদান বন্ধ আছে। এর মধ্যে 411টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আশ্রয়কেন্দ্র হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। Schools, madrash ও Technical মিলিয়ে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো মাধ্যমিক থেকে কলেজ পর্যায়ের।

আবদুল মান্নান খান এখন শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের পক্ষে ক্ষয়ক্ষতির প্রকৃত চিত্র নিরূপণ করবেন। এ রকম অবস্থায় ওই সব এলাকায় ঈদের আগে স্থগিত ssc exam 2022  নেওয়া কঠিন বলে মনে করেন তিনি। তবে তিনি বলেন, পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়টি Board of Education সিদ্ধান্তের বিষয়।

আরও জানুন:এফসিপিএস পরীক্ষার রুটিন প্রকাশ fcps exam

Leave a Comment