২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা শুরু ৬ নভেম্বর

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা শুরু ৬ নভেম্বর

আগামী ৬ নভেম্বর ২০২২(রোববার) থেকে দেশব্যাপী একযোগে ২০২২ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হবে। আসন্ন ২০২২ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় সারাদেশের মোট ১২ লক্ষ ৩ হাজার ৪০৭ জন অংশগ্রহণ করবে। গতবছর তথা ২০২১ সালে মোট পরীক্ষার্থীদের সংখ্যা ১৩ লক্ষ ৯৯ হাজার ৬৯০ জন থাকলেও ২০২২ সালে ১ লক্ষ ৯৬ হাজার ২৮৩ জন হ্রাস পেয়ে ১২ লক্ষ ৩ হাজার ৪০৭ জনে নেমে এসেছে। নিজেদের মাঝে উচ্চশিক্ষার স্বপ্নপূরণের দ্বিতীয় এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এই স্তরের এই পরীক্ষা নিয়ে শিক্ষার্থীদের মাঝে শেষ সময়ের প্রস্তুতি নিয়ে উৎকন্ঠা বিরাজমান। 

এক নজরে সব দেখুন

গত ১৯ অক্টোবর ২০২২(বুধবার), গনপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডা.দিপু মনি সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিস্তারিত আলোকপাত করেছেন।

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা এর বিস্তারিত 

পরীক্ষার ধরণ : পাবলিক পরীক্ষা

শ্রেণি: উচ্চমাধ্যমিক/এইচএসসি 

বোর্ড সমূহ : সাধারণ শিক্ষাবোর্ড সমূহ : ঢাকা বোর্ড,রাজশাহী বোর্ড,কুমিল্লা বোর্ড,চট্রগ্রাম বোর্ড,বরিশাল বোর্ড,সিলেট বোর্ড,ময়মনসিংহ বোর্ড ও দিনাজপুর বোর্ড।

পরীক্ষা শুরু : ৬ নভেম্বর ২০২২ থেকে

তত্ত্বীয় পরীক্ষা শেষ : ১৩ ডিসেম্বর ২০২২

ব্যবহারিক পরীক্ষা শুরু: ১৫ ডিসেম্বর ২০২২

 

কোচিং সেন্টার বন্ধ রাখার ব্যপারে নির্দেশনা এইচএসসি পরীক্ষা শুরু ৬ নভেম্বর

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ উপলক্ষে সমস্ত কোচিং সেন্টার ৩ নভেম্বর ২০২২ থেকে বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। প্রশ্নফাঁসের গুজব ও নকল মুক্ত পরিবেশে নিশ্চিত করে সুষ্ঠু ও সুন্দর পরিবেশে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত করার লক্ষ্যে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এছাড়া আগামী ১ জানুয়ারি থেকে নতুন শিক্ষাবর্ষের বই যথারীতি বিতরণ করা হবে। 

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা কেন্দ্র ও পরীক্ষার্থীর সংখ্যা 

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ এ  ১১ টি শিক্ষাবোর্ডের অধীনে সর্বমোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ১২ লক্ষ ৩ হাজার ৪০৭ জন। তন্মধ্যে ছাত্র ৬ লক্ষ ২২ হাজার ৭৯৬ জন হলেও ছাত্রী ৫ লক্ষ ৮০ হাজার ৬১১ জন। 

মোট কেন্দ্রের সংখ্যা ২ হাজার ৬৪৯ টি,প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৯ হাজার ১৮১ টি। গতবারের তুলনায় এবার ২৮ টি কেন্দ্র বৃদ্ধি পেলেও ২ টি প্রতিষ্ঠান কমেছে। বিদেশের ৮ টি কেন্দ্রে ২২২ জন পরীক্ষার্থী পরীক্ষা দিবে। 

এর আগে, এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ এর সংশোধিত রুটিন প্রকাশ করেছে মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা অধিদফতর। 

পরীক্ষার সময়সূচি বিস্তারিত 

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ এর রুটিনে উল্লেখ করা হয়েছে,সর্বমোট ২ ঘন্টার পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। তন্মধ্যে পরীক্ষার্থীরা ২০ মিনিট বহুনির্বাচনি এবং ১ ঘন্টা ৪০ মিনিট সময় পাবে রচনামূলক প্রশ্নোত্তরের জন্য। 

বহুনির্বাচনি পরীক্ষা দিয়ে শুরু হয়ে পরে রচনামূলক(তত্ত্বীয়) পরীক্ষা হবে। মাঝে কোনো বিরতি থাকবে না। অন্তত ৩০ মিনিট আগে পরীক্ষার্থীদের আসন গ্রহণ করতে হবে। 

সকাল 11 টা থেকে অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে :

  • সকাল ১০.৪৫ মিনিটে অলিখিত উত্তর পত্র ও বহুনির্বাচনির জন্য OMR শিট বিতরণ।
  • সকাল ১১.০০ টা-ই বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র বিতরণ।
  • ১১.২০ মিনিটে OMR শিট সংগ্রহ এবং সৃজনশীল প্রশ্নপত্র বিতরণ।

দুপুর 2. টা থেকে অনুষ্ঠেয় পরীক্ষার ক্ষেত্রে :

  • দুপুর ১.৪৫ মিনিটে অলিখিত উত্তর পত্র ও বহুনির্বাচনির জন্য OMR শিট বিতরণ।
  • সকাল ২.০০ টা-ই বহুনির্বাচনি প্রশ্নপত্র বিতরণ।
  • দুপুর ২.২০ মিনিটে OMR শিট সংগ্রহ এবং সৃজনশীল প্রশ্নপত্র বিতরণ।

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ এর সংশোধিত রুটিন দেখুন 

নতুন সংশোধিত সময়সূচি ডাউনলোড করা যাবে https://dhakaeducationboard.gov.bd/data/20221012163457891885.pdf লিংক থেকে ডাউনলোড করা যাবে। 

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ সংক্রান্ত নির্দেশনা 

সকল শিক্ষাবোর্ডের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা ২০২২ এর পরীক্ষার্থীদের নিম্নোক্ত নির্দেশনা মেনে চলতে হবে।

  • পরীক্ষা শুরুর অন্তত ৩০ মিনিট পূর্বে নির্দিষ্ট কক্ষের নির্দিষ্ট আসনে পরীক্ষার্থী কে আসন গ্রহণ করতে হবে।
  • প্রথমে বহুনির্বাচনি ও পরে creative/রচনামূলক পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।
  • বহুনির্বাচনির জন্য ২০ মিনিট ও সৃজনশীল/রচনামূলক পরীক্ষার জন্য ১ ঘন্টা ৪০ মিনিট সময় দেওয়া হবে। সময় প্রশ্নে উল্লেখ থাকবে। বহুনির্বাচনি ও সৃজনশীল/রচনামূলক পরীক্ষার মধ্যে কোনো বিরতি থাকবে না।
  • প্রশ্নপত্রে উল্লেখিত সময় অনুযায়ী অনুষ্ঠিত হতে হবে পরীক্ষা।
  • পরীক্ষার্থীরা স্ব – স্ব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে প্রবেশ পত্র আগেই সংগ্রহ করবে।
  • প্রত্যেক পরীক্ষার্থীকে সরবরাহকৃত উত্তর পত্রে পরীক্ষার রোল,রেজিষ্ট্রেশন নাম্বার এবং বিষয় কোড OMR শিটে লিখে অবশ্যই বৃত্ত ভরাট করতে হবে। কোনো অবস্থাতেই ভাঁজ করা যাবে না উত্তরপত্র।
  • পরীক্ষার্থী কে অবশ্যই বহুনির্বাচনি ও সৃজনশীল অংশে পৃথকভাবে উত্তীর্ণ হতে হবে।
  • পরীক্ষার্থী রেজিষ্ট্রেশন ও প্রবেশপত্রে উল্লেখিত বিষয় ব্যাতিত কোনো অবস্থাতেই অন্য কোনো বিষয়ে পরীক্ষা দিতে পারবে না
  • কোনো পরীক্ষার্থীর পরীক্ষায় নিজ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অনুষ্ঠিত হবে না। পরীক্ষার্থী স্থানান্তরের মাধ্যমে আসন বিন্যাস করতে হবে।
  • পরীক্ষার্থীরা সাধারণ সাইন্টিফিক ক্যালকুলেটর ব্যাবহার করতে পারলেও প্রোগ্রামিং ক্যালকুলেটর ব্যাবহারের অনুমতি পাবে না।
  • পরীক্ষার্থীদের ব্যাক্তিগত মোবাইল ফোন বা ইলেকট্রনিক ডিভাইস আনা সম্পুর্ন নিষিদ্ধ। শুধুমাত্র কেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোবাইল ফোন ব্যাবহার করতে পারবে।

২০২২ সালের এইচএসসি পরীক্ষা উপরিউক্ত সমস্ত নিয়মাবলি মেনেই কেবল একজন শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করতে পারবে। স্বপ্নপূরণের অগ্রযাত্রায় নবীনদের সব প্রচেষ্টা সফল হোক।

আরো দেখুন: শ্রান্তি বিনোদন ছুটির আবেদন নমুনা

Leave a Comment